ঢাকারবিবার , ২৮শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আবহাওয়া
  3. আমাদের পরিবার
  4. আর্ন্তজাতিক
  5. ইসলামী জীবন
  6. করোনা আপডেট
  7. কামারখন্দ
  8. খেলাধুলা
  9. চাকরি-বাকরি
  10. জাতীয়
  11. নাগরিক সংবাদ
  12. পাঁচমিশালি
  13. বরিশাল বিভাগ
  14. বাংলাদেশ
  15. বিনোদন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

তাড়াশে পাকা ধানে কৃষকের স্বপ্ন

admin
নভেম্বর ২, ২০২১ ৯:০৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

যুগের কথা প্রতিবেদক : চলনবিল অধ্যুষিত সিরাজগঞ্জের তাড়াশে পাকতে শুরু করেছে রোপা আমন ও বোনা আমন ধান। পাকা ধানে সোনালি হয়ে উঠেছে বিস্তৃত মাঠ। কিছু কিছু এলাকায় ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে কাটা-মাড়াইয়ের কাজ। তবে কাটা-মাড়াই পুরোপুরি জমে উঠতে আরও কয়েক দিন লাগবে। এ নিয়ে প্রস্তুতি নিচ্ছেন কৃষি শ্রমিকেরা।

তাড়াশ উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে তালম, দেশীগ্রাম, মাধাইনগর ও বারুহাঁস ইউনিয়নে ইরি-বোরো ধান কাটার পর একই জমিতে ব্রি-৫৮, ব্রি-৩৪, ব্রি-৩৬ ও পাইজাম জাতের ধান চাষাবাদ করেন কৃষকেরা। এ ছাড়াও তাড়াশ সদর, মাগুড়া বিনোদ, সগুনা ও নওগাঁ ইউনিয়ন নিচু এলাকা হওয়ায় বোরো ধান কাটার পর বোনা আমন জাতের ধান চাষ করা হয়।

চলতি বর্ষা মৌসুমে ওই ৮ ইউনিয়নে ৬ হাজার ৮০০ হেক্টর জমিতে রোপা আমন ও বোনা আমন জাতের ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল। ইতিমধ্যে আগাম জাতের রোপা আমন ধান পাকতে শুরু করেছে। অনুকূল আবহাওয়া ও পোকার আক্রমণ কম হওয়ায় ভালো ফলনের বিষয়ে আশাবাদী চাষিরা।

উপজেলার তালম ইউনিয়নের বড়ইচড়া গ্রামের কৃষক জহুরুল ইসলাম বলেন, অনুকূল আবহাওয়া, রোগ বালাই কম, আর সঠিক মাত্রায় সার প্রয়োগে এ বছর রোপা আমন ও বোনা আমন ধানের ভালো ফলনের আশা করা হচ্ছে।

উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের কর্ণঘোষ গ্রামের কৃষক আব্দুল জব্বার, অলি প্রামানিক, ফিরোজ হোসেনসহ একাধিক কৃষক জানান, বোরো ধান কাটার পরই জমিতে রোপা আমন জাতের ধান লাগানো হয়। এ সময় বৃষ্টিপাত বেশী হওয়ায় এ জাতের ধান চাষে পানি সেচ ততটা দিতে হয় না। সার ও কীটনাশকও লাগে কম। এবার আবহাওয়া ভালো থাকায় ধানে তেমন পোঁকার আক্রমণ হয়নি। কদিন পরই ধান কাটা পুরোপুরি শুরু হবে। বিগত বছরের চেয়ে এবার বাম্পার ফলনের আশা করছেন তাঁরা।

মাগুড়াবিনোদ ইউনিয়নের মাগুড়া গ্রামের কৃষক রোস্তম আলী, তাড়াশ পৌর এলাকার খুটিগাছা গ্রামের কৃষক সাইফুল ইসলাম জানান, ইরি ধান কাটার পরই ওই জমিতে দিঘা ভাউলা, মাটিয়াগরল, লাউজাল জাতের আমন ধান বোনা হয়ে থাকে। এ বছর বন্যার পানি কম হওয়ায় আমন ধান ভালো হয়েছে। ফলনও ভালো হবে। বাজারে ভালো দাম পেলে লাভবান হবেন চাষিরা।

তাড়াশ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ লুৎফুন্নাহার লুনা বলেন, তাড়াশ উপজেলায় বর্ষা মৌসুমে রোপা আমন ও বোনা আমন জাতের ধান চাষ হয়ে থাকে। এ বছর তাড়াশে প্রায় ৬ হাজার ৮০০ হেক্টর জমিতে রোপা ও আমন ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছিল। যা গত বছরের চেয়ে ৫০০ হেক্টর বেশী।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।