ঢাকারবিবার , ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আবহাওয়া
  3. আমাদের পরিবার
  4. আর্ন্তজাতিক
  5. ইসলামী জীবন
  6. করোনা আপডেট
  7. খেলাধুলা
  8. চাকরি-বাকরি
  9. জাতীয়
  10. নাগরিক সংবাদ
  11. পাঁচমিশালি
  12. বরিশাল বিভাগ
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. বিশ্ব সংবাদ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সিরাজগঞ্জে নৌকার সমর্থকদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থীর জনসভায় হামলা ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পোষ্টার ছিরে আগুন

admin
নভেম্বর ৪, ২০২১ ৬:০০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি : ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলী ইউপিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর জনসভায় হামলা ও ভাংচুর ও অপর তিন স্বতন্ত্র প্রার্থী পোষ্টার ছিরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে নৌকা প্রার্থী মঞ্জুরুল ইসলাম তালুকদার ও তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে। এসময় আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর ঘোড়া মার্কার প্রায় ১শ’ চেয়ার, জনসভার প্যান্ডেল, মাইক ভাংচুর ও তিন স্বতন্ত্র প্রার্থী পোষ্টার ছিরে ফেলে তারা।
বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী গাজী আব্দুল বারী তালুকদার, বর্তমান চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী রুহুল আমিন সরকার, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো: ফরহাদ হোসেন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো: সালেহ মাহমুদ মিঞা বাবু।
স্থানীয়রা জানান, বুধবার রাতে বহুলী মাঠে নির্বাচনী জনসভা ছিল ঘোড়া মার্কার। অর্তকিত ভাবে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর সমর্থকরা লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালিয়ে চেয়ার টেবিল ও মাইক ভাংচুর করে। স্থানীয়রা আরো বলেন, রাতদিন নৌকা প্রতিকের সমর্থকরা লাঠিসোটা নিয়ে প্রতিটি এলাকায় মহরা দিচ্ছে। এদের কারনে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে।
বহুলী ইউপির আ’লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী গাজী আব্দুল বারী তালুকদার অভিযোগ করে বলেন, বিনা উস্কানিতে নৌকা প্রার্থীর লোকজন আমার নির্বাচনি অফিসে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। তারা লাঠিসোটা নিয়ে আমার সমর্থকদের হুমকি ধামকি দিচ্ছে। বুধবার রাতে বহুলী মাঠে আমার নির্বাচনী জনসভাতে হামলা চালিয়ে চেয়ার টেবিল ভাংচুর করে। এবং মাইক খুলে নিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত নৌকা প্রার্থী মঞ্জুরুল ইসলাম তালুকদারের নেতৃত্বে বহুলী ইউনিয়নের প্রতিটি এলাকায় চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থীদের পোষ্টার ছিরে আগুন দিয়ে উল্লাস করে।
তিনি আরো বলেন, আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা এবং এই ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ছিলাম। ভোট সুষ্ট হলে আমি শতভাগ বিজয়ী হবো। এর কারনে নির্বাচনে নৌকার নিশ্চিত পরাজয় ভেবে এসব তান্ডবলীলা চালাচ্ছে। আমারা চারজন প্রার্থী জেলা নির্বাচন ও রিটানিং অফিসার, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার এবং সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।
নৌকা প্রার্থী মঞ্জুরুল ইসলাম তালুকদারকে বারবার ফোন দিলেও সে রিসিভ করেননি। ফলে স্বাক্ষাতকার নেয়া সম্ভব হয়নি।
বর্তমান চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র প্রার্থী রুহুল আমিন সরকার জানান, বহুলী ইউনিয়নে নৌকার পোষ্ঠার ছারা সকল চেয়ারম্যান প্রার্থীর পোষ্টার ছিরে ফেলেছে আওয়ামীলীগের প্রার্থীর সমর্থকরা। তারা গত তিনদিনে পোষ্টার ছেরা থেকে শুরু করে আমাদের কর্মীদের মারধর ও প্রাণ নাশের হুমকী দিচ্ছে। তাই আমারা বৃহস্পতিবার জেলা নির্বাচন ও রিটানিং অফিসার, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার এবং সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। আশা করছি তারা তদন্ত করে যতাযথ ব্যবস্থা নেবে।
সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম জানান, জনসভায় ভাংচুর হয়েছে এসংক্রান্ত লিখিত অভিযোগের ভিক্তিতে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আজিজার রহমান জানান, এধরনের ঘটনা ঘটে থাকলে তদন্তকরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।