ঢাকারবিবার , ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আবহাওয়া
  3. আমাদের পরিবার
  4. আর্ন্তজাতিক
  5. ইসলামী জীবন
  6. করোনা আপডেট
  7. খেলাধুলা
  8. চাকরি-বাকরি
  9. জাতীয়
  10. নাগরিক সংবাদ
  11. পাঁচমিশালি
  12. বরিশাল বিভাগ
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. বিশ্ব সংবাদ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

তাড়াশে ইটভাটায় পুড়ছে কাঠ

admin
নভেম্বর ২৩, ২০২১ ৯:০৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ইট তৈরির উপকরণ কয়লা। সেটির দাম গত বছরের তুলনায় বেড়েছে প্রায় তিনগুণ। আর কয়লার দাম বেড়ে যাওয়ায় ইটের উৎপাদনব্যয়ও বেড়েছে। অপরদিকে ইটের উৎপাদনব্যয় সহনীয় রাখতে সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় কিছু অসাধু মালিক ইটভাটায় দেদার কাঠ পোড়াচ্ছেন।
তবে ইটভাটার মালিক সমিতির সভাপতি বলছেন বেশি দামে কয়লা কিনেই মালিকেরা ইট পোড়াচ্ছেন। আর পরিবেশ আন্দোলনকর্মীরা বলছেন, ইটের উৎপাদনব্যয় সহনীয় রাখতে ইটভাটার অসাধু মালিকেরা অহরহ পোড়াচ্ছেন কাঠ।
জানা গেছে, উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে মাধাইনগর ও নওগাঁ ইউনিয়নে মোট সাতটি ইটভাটা রয়েছে। আর এসব ভাটায় উৎপাদিত ইট এলাকার বাসাবাড়ি, রাস্তাঘাট ও সব ধরনের ঠিকাদারি কাজে তা ব্যবহার হয়ে আসছে। এসব ইট তৈরিতে ইটভাটার মালিকেরা যশোরের নওপাড়া ও পাবনা জেলার নগরবাড়ি থেকে কয়লা কিনে থাকেন।
উপজেলার এমএমবি ইটভাটার মালিক মো. মোফাজ্জল হোসেন বলেন, ২০২০ সালের নভেম্বর থেকে ২০২১ সালের মে মাস পর্যন্ত ইটভাটার মালিকেরা প্রতি টন ইন্দোনেশিয়ার কয়লা সাড়ে ৮ হাজার থেকে ৯ হাজার ২শ টাকায় কিনেছেন। অথচ এ বছর কয়লার বাজারে সাউথ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার কয়লা না পাওয়ার কারণে চলমান ইট তৈরির ভরা মৌসুম নভেম্বর থেকেই প্রতি টন ইন্দোনেশিয়ার কয়লা ২২ হাজার টাকায় কিনতে বাধ্য হচ্ছেন। যে কয়লার দাম গত বছরের চেয়ে বর্তমানে প্রায় তিনগুণ বেশি।
মোফাজ্জল হোসেন আরও বলেন, সাধারণত একটি ইটভাটায় এক টন কয়লা পুড়িয়ে আড়াই হাজার থেকে ৩ হাজার ইট তৈরি করা সম্ভব। এতে করে বর্তমান সময়ে এক টন কয়লা ২২ হাজার টাকা দরে কিনে ইট তৈরি করলে তাদের প্রতি হাজার ইটের উৎপাদনব্যয় পড়ে প্রায় ১০ হাজার টাকার মতো, ২০২০ সালের ইট তৈরির ভরা মৌসুমে যার উৎপাদনব্যয় ছিল সাড়ে ৭ হাজার থেকে ৮ হাজার টাকা মাত্র। কয়লার দাম বাড়ার কারণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন, আন্তর্জাতিক বাজারে কয়লার দাম বেড়ে যাওয়ায় দেশের কয়লার বাজারেও এর প্রভাব পড়েছে।
এদিকে কয়লার দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় ইটভাটাগুলোতে ইটের উৎপাদনব্যয় সহনীয় রাখতে ইটভাটার অসাধু মালিকেরা অহরহ পোড়াচ্ছেন কাঠ। এমনটাই জানান উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের পরিবেশ আন্দোলনের কর্মী আব্দুল গাফ্ফার। তিনি আরও বলেন, ইটভাটাগুলোতে এভাবে কাঠ পোড়ালে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হবে। জীব-বৈচিত্র্যের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়বে।
এ প্রসঙ্গে উপজেলার ইটভাটার মালিক সমিতির সভাপতি মো. মোসলেম উদ্দিন জানান, বেশি দামে কয়লা কিনেই ইটভাটার মালিকেরা ইট পোড়াচ্ছেন। সেই সঙ্গে উৎপাদনব্যয় বেড়ে যাওয়ায় ইটের দামও বেড়ে যাচ্ছে। তবে ইট তৈরির ব্যয় সংকুলানে কাঠ পোড়ানোর অভিযোগ সঠিক নয়।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।