ঢাকারবিবার , ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আবহাওয়া
  3. আমাদের পরিবার
  4. আর্ন্তজাতিক
  5. ইসলামী জীবন
  6. করোনা আপডেট
  7. খেলাধুলা
  8. চাকরি-বাকরি
  9. জাতীয়
  10. নাগরিক সংবাদ
  11. পাঁচমিশালি
  12. বরিশাল বিভাগ
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. বিশ্ব সংবাদ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মৃত্যুপথযাত্রীর ওষুধও মাদক হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে

admin
নভেম্বর ২৩, ২০২১ ৮:৫৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মৃত্যুপথযাত্রীর যন্ত্রণা কমানোর ওষুধ অক্সি-মরফোন দেশে মাদক হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে, এমনকি সম্প্রতি এর ব্যবহারও বাড়ছে। একসময় ইনজেকশন হিসেবে ব্যবহৃত এই ওষুধ, এখন ট্যাবলেট আকারে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। এই ট্যাবলেটকে তরুণদের একটি অংশ বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় মাদক হিসেবে সেবন করছে। রাজধানীর কোতয়ালি ও ধানমন্ডি এলাকা থেকে ১৩ হাজার পিস অক্সি-মরফোনসহ দুই জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ।
ডিবি গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে চক্রের এই দুই সদস্যকে গ্রেফতার করা করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো মো. আলমগীর সরকার ও জাহিদুল ইসলাম। মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সকালে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত এ কে এম কমিশনার হাফিজ আক্তার এই তথ্য জানান। এর আগে শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) চক্রটিকে কোতয়ালি থানার বাবু বাজার এলাকা ও সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের ধানমন্ডি শাখায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এই ঘটনায় কোতয়ালি থানায় একটি মামলা হয়েছে।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশের একটি প্রতিষ্ঠান অনুমতি সাপেক্ষে এই ওষুধ আমদানি করে। কিন্তু এটিকে একটি চক্র দেশে মাদক হিসেবে যুব সমাজের কাছে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে। সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন ফার্মেসিতে এর ওরাল ওষুধের বিক্রি বেড়েছে। অক্সি-মরফোন একটি ইউফোরিক ড্রাগ। যা মস্তিষ্কে প্রচণ্ড আনন্দ অনুভূতি তৈরি করে।
ডিবির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর নির্দিষ্ট কিছু ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানকে নির্দিষ্ট পরিমাণ অক্সি-মরফোন বিক্রয় ও বাজারজাত করার অনুমোদন দেয়। যা নির্দিষ্ট কোম্পানির লাইসেন্স দিয়ে আনা হয়। এমনকি পরিবহনের রুট এবং কার কাছে বিক্রি করা হবে তাও জানানো হয়। দেশে অক্সি-মরফোন আমদানি ও বিক্রয়ের জন্য একমাত্র লাইসেন্সপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান হচ্ছে জিসকা ফার্মা। যারা সারাদেশে ১২০টি লাইসেন্সপ্রাপ্ত ডিলারের মাধ্যমে বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে সরবরাহ করে থাকে। গত ৫ মাসে ৫ লাখ ডোজ অক্সি-মরফোন বিক্রয় করেছে তারা। এটি শুধু রেজিস্টার্ড ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন এর অনুমোদিত পরিমাণ ব্যবহার করা যাবে।
ডিবি তাদের প্রাথমিক তদন্তে দেখেছে, ইদানিং ওরাল ফরমেটে অক্সি-মরফোন খুচরা বাজারে ব্যাপক হারে বিক্রয় হচ্ছে। যুব সমাজ বিশেষ করে বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজের শিক্ষার্থীরা এই অক্সি-মরফোন বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় মাদক হিসেবে তরল বানিয়ে সেবন করছে। তিনি বলেন, অক্সি-মরফোন হলো মরফিনের একটি এনালগ, যা একটি এনালজেসিক ড্রাগ হিসাবে ব্যবহৃত হয়। এটি ইনজেকশন থেকে ওরাল ফর্মে নিয়ে আসা হয়েছে। এটি মূলত কাজ করে সেন্ট্রাল নার্ভ সিস্টেমে (ব্রেইনে)। তীব্র ব্যথানাশক হিসেবে ক্যান্সার, হার্ট, দূরারোগ্য রোগে আক্রান্ত মৃত্যু পথযাত্রী রোগীর তীব্র ব্যথা কমানোর জন্য ব্যবহার করা হয়।
মাদক হিসেবে অক্সি-মরফোন ব্যবহারে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে তিনি বলেন, অক্সি-মরফোন একটি ইউফোরিক ড্রাগ। যা মস্তিষ্কে প্রচণ্ড আনন্দ অনুভূতি তৈরি করে। শরীরে সাময়িকভাবে দুঃখ-কষ্ট, ব্যথা ভুলিয়ে দেয়। মস্তিষ্ক বোধহীন অসাড় হয়ে যায়। ক্রমাগতভাবে অক্সি-মরফোন ব্যবহারে এটির প্রতি নির্ভশীলতা তৈরি হয়। ব্যবহারকারীরা এটি পাওয়ার জন্য বিভিন্ন প্রকার অপরাধকান্ডে জড়িয়ে পরে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।