ঢাকামঙ্গলবার , ২৩শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আবহাওয়া
  3. আমাদের পরিবার
  4. আর্ন্তজাতিক
  5. ইসলামী জীবন
  6. এনায়েতপুর
  7. কক্সবাজার
  8. করোনা আপডেট
  9. খেলাধুলা
  10. চাকরি-বাকরি
  11. জাতীয়
  12. নাগরিক সংবাদ
  13. পাঁচমিশালি
  14. বরিশাল বিভাগ
  15. বাংলাদেশ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বেলকুচিতে রাতের আধারে বাঁধের মাটি লুট করছেন বদি ফকির ও মান্নান ফকির

যুগের কথা প্রতিবেদক
মার্চ ২৫, ২০২৪ ৩:৪২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রাতের আধারে বাঁধের মাটি লুট করছেন বেলকুচি চেয়ারম্যান প্রার্থী বদি ফকির ও মান্নান ফকির
যুগের কথা প্রতিবেদক :

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের আজুগড়া বেড়িবাঁধ সংলগ্ন যমুনার শাখা নদী থেকে অবৈধভাবে রাতের আধারে মাটি কেটে সাবাড় করা হচ্ছে। অভিযোগ রয়েছে, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ও বেলকুচি উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বদি ফকির ও তার ভাই মান্নান ফকিরের নেতৃত্বে অবৈধভাবে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে মাটি কেটে বিক্রি করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। অবৈধভাবে মাটি টাকার কারনে গত বছর যমুনার ঘুর্নাবর্তে বেড়ী বাঁধটিতে ধ্বস নেমেছিল। সরকার কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে বেড়িবাঁধটি সংস্কার করছে। একদিকে, সংস্কার কাজ চলছে অন্যদিকে প্রভাবশালী মাটি খেকো দুইভাই মাটি কাটছে। ক্ষমতাসীন দলের নেতা হওয়ায় কেউ ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না। স্থানীয়দের অভিযোগ অবৈধ এই টাকার দাপটে মান্নান ফকিরের ভাই বদি ফকির উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে লড়ার জন্য প্রার্থী হচ্ছেন। স্থানীয়রা অবিলম্বে অবৈধ মাটি কাটা বন্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। উপজেলা প্রশাসন বলছে, অভিযান পরিচালনা করায় তারা টাইম চেঞ্জ করে রাতের আধারে মাটি কাটছে। বিষয়টি দেখে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সরেজমিনে দেখা যায়, দৌলতপুর ইউনিয়নের মৎস্য ডিপ্লোমা ও ভেটেরেনারি কলেজ রক্ষাসহ স্থানীয় স্থাপনা রক্ষায় আজগুড়া বেরিবাঁধ নির্মাণ করা হয়। কিন্তু প্রভাবশালী মান্নান ফকির ও তার ভাই বদি ফকির ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে প্রকাশ্যে দিবালোকে মাটি কেটে ট্রাকযোগে নিয়ে বিক্রি করে আসছিল। মাস খানেক আগে প্রশাসনের তৎপরতায় দিনে মাটি কাটা বন্ধ হয়। পরে মাটি খেকো মান্নান ফকির ও বদি ফকিরের নেতৃত্বে একদল মাটিদুস্য প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে রাতের আধারে দেদারছে মাটি কেটে নিয়ে বিক্রি করছে। সরেজমিনে দেখা যায়, বাঁধের দক্ষিন পাশ থেকে সন্ধ্যার পর থেকেই মাটি কাটা শুরু হয়। গভীর রাত পর্যন্ত শতশত ট্রাক মাটি কেটে নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করা হচ্ছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ট্রাক চালকরা জানান, মান্নান ফকির ও বদি ফকির দুজন এ মাটি কাটার নেতৃত্বে দিচ্ছেন। তাদের লোকজনই আমাদের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছেন। তাদের নেতৃত্বে প্রতিদিন শত শত ট্রাক মাটি কেটে বিক্রি করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে মান্নান ফকির জানান, আমি যখন কাটতাম তখন দিনে মাটি কাটতাম। এখন আমি মাটি কাটি না বা বিক্রিও করি না। শুনেছি রাতের আধারে এলাকার কিছু লোকজন মাটি কেটে বিক্রি করছে। ভাই নির্বাচনে অংশগ্রহন করছে, তাই এসবের সাথে এখন আমি আর আমার ভাই কেউ জড়িত নই।

এ বিষয়ে বেলকুচি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফিয়া সুলতানা কেয়া জানান, বেরিবাঁধ এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাটি কাটা বন্ধ করা হয়েছিল। এ কারনে সময় চেঞ্জ করে হয়তো রাতের আধারে মাটি কাটা হচ্ছে। পর্যবেক্ষন করে দ্রুতই ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।